Monday, December 7, 2015

দীপনের দোকান

আনিসুর রহমান

দোকানের মালপত্র সাবাড় করে, নতুন পণ্যে পসার বাড়ে,
এলো গোলক দিন, আজব নগরে, শয়তান শ্রাদ্ধ করে!

কে সে ছেলে? কিনে অন্য সদাই, চিনে মানুষের মুখ
শুনে পাখির গান, জেনেছিল মাছের সাঁতার
দেখেছিল প্রজাপতির হাসি, ফুল আর পাতাদের রঙ
পেয়েছিল জীবনের পণ, মায়া ভরা শিশুদের ঢং!

জীবন হাটের দোকানে চলো, হাক দিয়ে গেলো
এসেছে নতুন মহাজন হবে নতুন কারবার, কি বলো?
খবর রটে যায়, নগরের আকাশে বাতাসে উড়ে
বুড়ো বাপ তার নগরের মাথা মাথা ঘুরে,  
ছেলের খোঁজ করে, পথের টোকাই খেয়াল করে,
আহারে বোকা বাপ, কয় দিশেহারা বুড়ো লোকটিরে,
ব্যবসার নতুন পসারে আজ আপনার ছেলেও কি না
জীবনের হাটের লাভ লোকসানের সওদা হয়ে ফিরে!

দোকানে উকি দিয়ে দেখে বাপ টেবিলে  ছেলের মাথা ঝুলে
বাবাটি কি করে? মাথা ঠুকে দেয়ালে,দীর্ঘ শ্বাস ফেলে
বাবা দেয়ালের লেখা পড়ে, ’এখানে জীবনের দামে
মুণ্ডু ফেলে দিন, রক্ত মাড়িয়ে বেহেশত কিনে নিন!’

বাবা দেখে ভবের দোকানে ছেলেও পণ্য আজ,
এদেশ লাশকাটা ঘরে, কে তার দীপনের মাথা বিক্রি করে?

0 comments:

Post a Comment