Monday, March 30, 2015

অভিজিতের খুনি



এই শহরে কাজ নেই কোনো, আমি এক স্বপ্নবাজ যেন
পকেটে পান-চুরুট পুড়ে, এপথ-ওপথ ধরে সারা শহর জুড়ে
হিমুর বেশে ঘুরি, ফেরারি তদন্ত করি,
অলিগলি জনপথ ধরে, প্রাসাদের মোড় ঘুরে
তেমাথা চৌমাথা পুলিশ, নিয়ন বাতি, নেড়ি কুত্তা
কাক-পক্ষী সবাইকে, হাই হ্যালো করে
বিশ্ববিদ্যালয়-ধারে, উদ্যান ঘেঁষা পথে
পড়ে থাকা পাতাদের, জিগালাম এক এক করে
বলো তো দিন-দুপুরে, ভরা মেলায় হাজার

মানুষের ভিড়ে আমার সোনার টুকরো ভাইটি
খুন হল কী করে, আমার এই কথা শুনে
পথের ধুলি, গাছের পাতা, পাখি বলে কানে কানে
কথাটি গোপন শোনো ভালো করে, ভুল করে
বলো না কাউকে ঘুণাক্ষরে, অতীব গোপন স্পর্শকাতর
নিজের কানে বাজে এতবার করে, নিস্তার পাই কী করে
গাছের পাখি পাতা আর ধুলিকণার কণ্ঠে শুনতে পাই
‘তুমি অভিজিতের ভাই এতটা কাপুরুষ, কী করে
এই শহরে হাজার মানুষের ভিড়ে খুনিরা ছুরি মারে
খুনিরে পাকড়াও না করে বেঁচে আছ কোন মুখ করে
তুমিও অভিজিতের খুনি দেখ হিসেব করে!’


উপসালা, পহেলা মার্চ ২০১৫

http://arts.bdnews24.com/?p=6455

1 comments:

othoy said...

অভিজিত হত্যাকারীদের এখনো বিচারের আওয়াতায় আনা গেল না। এটা চরম লজ্জাকর। এইভাবে ব্লগার হত্যা হতে থাকলে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার মত ব্যাপার আর থাকবেই না। এটিনিউজবিডি

Post a Comment